রাণীসংকৈলে রাইস ট্রান্সপ্লান্টার যন্ত্রের মাধ্যমে সমলয় চাষের উদ্ভোধন করলেন ডিসি !

প্রকাশিত: ৪:১০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৫, ২০২১

রাণীশংকৈল প্রতিনিধি ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈল উপজেলার নেকমরদ করনাইট দিঘীয়া গ্রামের ১৪ জন কৃষকদের ৫০ একর জমিতে রাইস ট্রান্সপ্লান্টার প্রণোদনা প্যাকেজ কার্যক্রম উদ্ভোধন করলেন ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড. কে এম কামরুজ্জামান ।
সোমবার (২৫ জানুয়ারি) উপজেলা কৃষি পূর্ণবাসন বাস্তবায়ন কমিটি ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের যৌথ আয়োজনে রবি মৌসুমের প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় সমলয় চাষাবাদ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে হাইব্রিড বোরো ধানের চারা রাইস ট্রান্সপ্লান্টার যন্ত্রের মাধ্যমে রোপন কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় প্রদর্শনীর মাধ্যমে ১৪ জন কৃষকের ১৫০বিঘা জমিতে ১২ লক্ষ ২১ হাজার টাকা ব্যয়ে ধান রোপন সার কীটনাশক থেকে ধান কাটা পর্যন্ত সার্বিক সহযোগিতা করা হবে।

এ সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল সুলতান জুলকার নাইন কবির স্টিভ’র সভাপতিত্বে উদ্ভোধনী কার্যক্রম অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন জেলা প্রশাসক ড.কে এম কামরুজ্জামান সেলিম।
বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আফতাব হোসেন,
উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহরিয়ার আজম মুন্না, উপজেলা কৃষি অফিসার সঞ্জয় দেবনাথ, নেকমরদ ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক, কৃষি অফিসের বিভিন্ন কর্মকর্তা প্রেসক্লাব সভাপতি ফারুক আহম্মদে, সাংবাদিক ফিরোজ আমিন, সামসুজ্জোহা, বিজয় সহ এলাকার সর্বস্তরের মানুষ ও উপকারভোগী কৃষক কৃষানীগন ।

উপজেলা অফিসার সঞ্জয় দেবনাথ স্বাগত বক্তব্যে বলেন আধুনিক যন্ত্রপাতির মাধ্যমে ১৪ জন উপকারভোগী কৃষকের মাঝে ৫০ একর জমিতে এই প্রণোদনা প্যাকেজের কার্যক্রম শুরু করল কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।
এ কার্যক্রমটি রংপুর বিভাগের মধ্যে রাইস ট্রান্সপ্লান্টার যন্ত্রের মাধ্যমে এই প্যাকেজটি রাণীশংকৈল উপজেলাতেই সর্বপ্রথম চালু করা হল। এতে উপজেলার কৃষকরা অনেক লাভবান হবেন।

অনুষ্ঠানটির ধারাভাষ্যে ছিলেন উপজেলা উপ সহকারি কৃষি কর্মকর্তা মোঃ সাদেকুল ইসলাম।


সম্পাদক

মোঃ আবুল হাসান মোবাইল নাম্বার 01860003666

বার্তাকক্ষ

মোবাইল নাম্বার 09638870180