সাংবাদিক কামাল নির্যাতনের প্রতিবাদে তাহিরপুর প্রেসক্লাবের মানববন্ধন

sagar sagar

Hasan

প্রকাশিত: ১:০৭ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২১

তাহিরপুর সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃঃ
সুনামগঞ্জ তাহিরপুর উপজেলায় সাংবাদিক কামাল হোসেনকে গাছে বেঁধে মারধরের ঘটনায় ৫ বালু ও পাথর খেকোর নামে মামলা দায়ের হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে আহত সাংবাদিক কামাল হোসেন বাদী হয়ে তাহিরপুর থানায় এ মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামীরা হলো উপজেলার ঘাগটিয়া গ্রামের মাহমুদ আলী শাহ,রইছ উদ্দিন,দীন ইসলাম,মুশাহিদ তালুকদার ও মনির উদ্দিন মেম্বার। এর আগে মঙ্গলবার সকালে তাহিরপুর থানা পুলিশ কামাল হোসেনের নির্যাতনের ভিডিও ক্লিপ দেখে সন্দেহভাজন ঘাগটিয়া গ্রামের ফয়সল,আনহারুল,তাহির হোসেন ও মাতুবুল ইসলামসহ ৪ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। সন্দিগ্ধ আটককৃত ৪ জনকেই সুনামগঞ্জ জেল হাজতে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন তাহিরপুর থানার এসআই দীপঙ্কর বিশ্বাস।
তাহিরপুর উপজেলা প্রেসক্লাবের মানববন্ধন।
সাংবাদিক কামাল হোসেনকে গাছে বেঁধে মারধরের ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও শাস্তির দাবীতে মঙ্গলবার উপজেলা চত্বরে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে তাহিরপুর উপজেলা প্রেসক্লাব। তাহিরপুর উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি সমকাল সাংবাদিক আমিনুল ইসলামের সভাপতিত্বে সহ সভাপতি যায়যায় দিন প্রতিনিধি বাবরুল হাসান বাবলু’র সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন,উপজেলা আওয়ামীলীগ সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুছ ছোবাহান আখঞ্জি,উপজেলা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার রফিকুল ইসলাম,প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক ইত্তেফাক প্রতিনিধি আলম সাব্বির,যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মানবজমিন প্রতিনিধি এমএ রাজ্জাক স্বাধীন,কোষাধক্ষ ভোরের কাগজ প্রতিনিধি সাজ্জাদ হোসেন শাহ,সাংবাদিক আবির হাসান,রাজু আহমেদ রমজান, শামছুল আলম টিটু,তাহিরপুর বাজার বনিক সমিতির সাবেক সভাপতি সুধাংশু মোহন গাঙ্গুলি রতন,ইউপি সদস্যা সুষমা জাম্বিল,সাবেক ইউপি সদস্য আলী নূর,সমাজসেবক তুজাম্মিল হক নাসরুম প্রমূখ।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রাজিবুল ইসলাম বলেন, মামলার বাদী ঘাগটিয়া গ্রামের মাহমুদ আলী শাহ,রইছ উদ্দিন,দীন ইসলাম,মুশাহিদ তালুকদার ও মনির উদ্দিন মেম্বারসহ ৫ জনকে আসামী করে মামলা দিয়েছেন সাংবাদিক কামাল হোসেন। তিনি আরো জানান,
কামাল হোসেনের নির্যাতনের ভিডিও ক্লিপ দেখে মঙ্গলবার সকালে সন্দেহভাজন ঘাগটিয়া গ্রামের ফয়সল,আনহারুল,তাহির হোসেন ও মাতৃবুল ইসলামসহ ৪ জনকে আটক করে তাদের আদালতে চালান দেয়া হয়েছে।
সহকারী পুলিশ সুপার বাবুল আখতার বলেন,আসামীদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।


সম্পাদক

মোঃ আবুল হাসান মোবাইল নাম্বার 01860003666

বার্তাকক্ষ

মোবাইল নাম্বার 09638870180