শাহজাদপুরে প্রখ্যাত ২ মুক্তিযোদ্ধার কবর সংস্কার করা গেলো না অধ্যক্ষের বাঁধায়!

প্রকাশিত: ৯:৫৪ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২১

মো: রাসেল সরকার, শাহজাদপুর,সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুরের মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম প্রধান দুই সংগঠক, শাহজাদপুর কলেজ ছাত্র সংসদের তৎকালীন জিএস, থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদ শাহিদুজ্জামান হেলাল এবং তৎকালীন ছাত্রলীগের অন্যতম নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদ ফরহাদ হোসেন।

সদ্য স্বাধীন দেশে ১৯৭২ সনের ৯ জুন শাহজাদপুর কলেজে একটি কৃষক সমাবেশ চলাকালে প্রকাশ্য দিবালোকে দুষ্কৃতকারিদের সশস্ত্র হামলায় জনপ্রিয় ছাত্র নেতা ওই দুই বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ ৬ জন নির্মম হত্যাকান্ডের শিকার হন।

ওইদিন ওই হত্যাকান্ডের পর হাজার হাজার ছাত্র-জনতার দাবির মুখে কলেজ ছাত্র সংসদের উদ্যোগে বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহিদুজ্জামান হেলাল ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরহাদ হোসেনকে শাহজাদপুর কলেজে (বর্তমান সরকারি কলেজ) অবস্থিত শাহজাদপুর কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার’র পাদদেশে পাশাপাশি সমাহিত করা হয়।

সেই সময়ে ওই কবর দু’টি ইট-সিমেন্ট দিয়ে বেঁধে দেয়া হয়েছিলো। দীর্ঘ প্রায় ৪৮/৪৯ বছর অতিক্রান্ত হওয়ায় কবর দু’টি অনেকাংশেই জীর্ণ হয়ে পড়েছে। এমতাবস্থায়, কবর দু’টি স্থানীয় ছাত্র-জনতার সংস্কার করার দাবির মুখে বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহিদুজ্জামান হেলাল’র পরিবারের পক্ষ থেকে কবর দু’টি পূনঃনির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়।

পাশাপাশি পূনঃনির্মাণের জন্য শাহজাদপুর সরকারি কলেজের নিকট অনুমতি চাওয়া হলে কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. আব্দুস সাত্তার অনুমতি না দিয়ে উদ্যোক্তাদের ফিরিয়ে দিয়েছেন। এহেন অবস্থায়, মুক্তিযোদ্ধার পরিবারটি হতাশাগ্রস্থ হয়ে পড়েছেন। তাদের একটাই প্রশ্ন, দু’জন প্রখ্যাত মুক্তিযোদ্ধার কবর দু’টি কী পূনঃনির্মাণ করা সম্ভব হবে না?

উল্লেখ্য, শহিদ বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহিদুজ্জামান হেলাল ১৯৭১ সনের ৯ মার্চ নানা প্রতিবন্ধকতা উপেক্ষা করে ছাত্র-জনতার এক বিশাল জনসভায় শাহজাদপুরে প্রথম স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা উত্তোলন করেন।


সম্পাদক

নির্বাহী সম্পাদকঃ মাসুদ রানা পলক প্রকাশক মোঃ আবুল হাসান মোবাইল নাম্বার 01860003666

বার্তাকক্ষ

মোবাইল নাম্বার 09638870180