বিয়ের দাবিতে অনশন, পরে প্রেমিকের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

প্রকাশিত: ৯:২০ অপরাহ্ণ, মার্চ ১২, ২০২১

ডেস্ক ধর্ষণ মামলা দায়েরের পর অনশন ভাঙল রাজশাহীর বাঘায় বিয়ের দাবিতে দুইদিন ধরে অনশনে থাকা এক কলেজছাত্রী।

শুক্রবার (১২ মার্চ) ভুক্তভোগীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এর আগে বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) মধ্যরাতে ওই কলেজছাত্রীর বাবা রবিউল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

গেল বুধবার (১০ মার্চ) বিকেল ৪টা থেকে উপজেলার গৌড়াঙ্গপুর এলাকার সাজদার রহমানের ছেলে সেনা সদস্য আবদুল্লাহর বাড়ির গেটে বিয়ের দাবিতে অবস্থান করে ওই কলেজছাত্রী। বিয়ে না করা পর্যন্ত তিনি এই বাড়ি থেকে যাবে না এবং প্রয়োজনে আত্মহত্যা করবে বলে হুমকি দেয়।

কলেজছাত্রীর দাবি, আবদুল্লাহর সঙ্গে তার দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক। আবদুল্লাহ ও তার পরিবারের পক্ষ থেকে তাকে বিয়ের কথাও দেওয়া হয়। কিন্তু এরপর থেকে আর কোনো সাড়া না দিয়ে গা ঢাকা দেয় আবদুল্লাহ। পরে বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) রাতে অপহরণ করে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়।

এ বিষয়ে বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম বলেন, ‘ওই কলেজছাত্রীর বাবার অভিযোগ সাপেক্ষে মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। ভিকটিমকে উদ্ধার করে শারীরিক পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’


সম্পাদক

নির্বাহী সম্পাদকঃ মাসুদ রানা পলক প্রকাশক মোঃ আবুল হাসান মোবাইল নাম্বার 01860003666

বার্তাকক্ষ

মোবাইল নাম্বার 09638870180