ঠাকুরগাঁওয়ে স্কুলশিক্ষকের বাড়ি খুঁড়ে মিলল প্রাচীন মুদ্রা

প্রকাশিত: ১:৩২ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৭, ২০২১

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি ঠাকুরগাঁওয়ে এক স্কুলশিক্ষকের বাড়ি সংস্কার করতে গিয়ে মাটির নিচ থেকে ১৪৩টি প্রাচীন মুদ্রা পাওয়া গেছে।
সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে সদর উপজেলার রাজাগাঁও ইউনিয়নের রাজারামপুর গ্রামে ওই শিক্ষকের বাড়ি থেকে এসব মুদ্রা উদ্ধার করে পুলিশ বলে জানিয়েছেন রুহিয়া থানার ওসি চিত্ত রঞ্জন রায়।

ওসি চিত্ত রঞ্জন রায় বলেন, মনে হচ্ছে মুদ্রাগুলো দস্তা, ধাতব ও রূপা মিশ্রিত। ফারসি ও ইংরেজি লেখা রয়েছে মুদ্রার পিঠে।

উদ্ধার করা মুদ্রা প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তরে জমা দেওয়া হবে বলেন ওসি।
পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলার বলরামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কেশব চন্দ্র বর্মনের বাড়ি থেকে এসব মুদ্রা পাওয়া যায়। তবে তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে ফোন ধরেননি তিনি।

এলাকাবাসীর বরাতে ওসি চিত্ত রঞ্জন রায় ঠাকুরগাঁও ২৪ নিউজ পেপারকে বলেন, স্কুলশিক্ষক কেশব চন্দ্র বর্মনের বাড়ির বাথরুমের স্ল্যাব বসানোর জন্য মাটি খনন করছিলেন কয়েকজন শ্রমিক। খননের এক পর্যায়ে ঢাকনাযুক্ত একটি পিতলের কলস পান তারা। শ্রমিক মহেন্দ্র চন্দ্র বর্মন ওই কলস খুলে ভেতরে মুদ্রা দেখতে পান।

পরে মুদ্রা ভরা পিতলের কলসটি স্কুলশিক্ষক কেশব চন্দ্র বর্মনের কাছে হস্তান্তর করেন শ্রমিকরা।

শ্রমিক মহেন্দ্র ঠাকুরগাঁও ২৪ নিউজ পেপারকে বলেন, মাটি খননের সময় ঢাকনাযুক্ত পিতলের কলসটি পাওয়া যায়। কলসের ভেতর অনেকগুলো প্রাচীণ মুদ্রা ছিল। সেটি স্কুলশিক্ষকের কাছে দেওয়া হয়েছে।
“কলসটির ওজন কমপক্ষে ৩ থেকে ৪ কেজি ছিল।”

তবে পুলিশ বলছে, কলসের ওজন আনুমানিক এক কেজি আর মুদ্রাগুলোর ওজন দেড় কেজির মতো।


সম্পাদক

নির্বাহী সম্পাদকঃ মাসুদ রানা পলক প্রকাশক মোঃ আবুল হাসান মোবাইল নাম্বার 01860003666

বার্তাকক্ষ

মোবাইল নাম্বার 09638870180