বগুড়া কাহালুতে আ.লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে আহত সাত !

khalad khalad

hasan

প্রকাশিত: ৩:৩৮ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৮, ২০২১

খালেদ হাসান বগুড়া:

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর দিনে বগুড়ার কাহালুতে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে দুটি ট্রাক ভাঙচুর ও আহত সাত জন।

এতে নারহাট্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আব্দুর রহিম সমর্থকদের মধ্যে পাঁচজন ও অপর দিকে আওয়ামী লীগের ইউনিয়ন সভাপতি ও নারহাট্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রুহুল আমিন তালুকদার বেলাল সহ আরো এক-জন আহত হয়েছেন।

বুধবার (১৭ মার্চ) সন্ধ্যায় কাহালু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমবার হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেন। এর আগে দুপুরে কাহালু উপজেলার চারমাথা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন নারহাট্ট ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ কর্মী মো: নুর ইসলাম (৩৫), মো: মামুন(৩০), মো: বিপ্লব (৪২), মো: আজিজ (৩৯), মো: ইউসুফ (৩০)।
অপর দিকে -নারহাট্ট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান রহুল আমিন তালুকদার বেলাল (৫০) ও আওয়ামী লীগ কর্মী আব্দুল আজিজ (৩৯)। আহতরা বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। চিকিৎসক সূত্রে জানা যায় মো: ইউসুফ (৩০) এর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নারহাট্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আব্দুর রহিম বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন উপলক্ষে ট্রাকসহ মিছিল নিয়ে কাহালুর চারমাথার দলীয় কার্যালয়ের সামনে আসেন। এ সময় নারহাট্ট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন তালুকদার বেলাল এর নেতৃত্বে মিছিলে বাধা দেয়া হয়, এবং বঙ্গবন্ধুর ব্যানার ছিঁড়ে ফেলে। ব্যানার ছিড়ে ফেলা ও মিছিলে বাধা দেয়া কে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের মধ্যে হট্টগোল শুরু হয়। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে মারধরের ঘটনা ঘটে। সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে করে।

মারধরের বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ নেতা নারহাট্ট ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আব্দুর রহিম বলেন দীর্ঘ এক যুগের ও বেশি সময় ধরে আওয়ামী লীগ করছি। বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে নারহাট্ট ইউনিয়ন থেকে দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। এসময় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতির রুহুল আমিন তালুকদার বেলাল এর নেতৃত্বে আমার লোকজনের ওপর হামলা করে এবং দুটি ট্রাক ভাঙচুর করেছে।

নরহট্ট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান রহুল আমিন তালুকদার বেলাল বলেন, আব্দুর রহিম-সহ তার লোকজন আমার বিরুদ্ধে আক্রোশমূলক স্লোগান দেন, স্লোগান দিতে নিষেধ করায় তার লোকজন আমার উপর হামলা করে।

কাহালু থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমবার হোসেন বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এ বিষয়ে কোনো পক্ষই অভিযোগ করেনি।।


সম্পাদক

নির্বাহী সম্পাদকঃ মাসুদ রানা পলক প্রকাশক মোঃ আবুল হাসান মোবাইল নাম্বার 01860003666

বার্তাকক্ষ

মোবাইল নাম্বার 09638870180