স্বামীর সাথে অভিমানে দুই সন্তানকে বিষ খাইয়ে প্রাণ দিলেন মা

প্রকাশিত: ১০:০০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৪, ২০২১
ফাইল

ডেস্ক শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে সুমাইয়া আক্তার নামে এক গৃহবধূ বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন। নিজে বিষপানের আগে দুই মেয়েকেও বিষপান করান তিনি।
রোববার দুপুরে উপজেলার দাসেরজঙ্গল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সুমাইয়া একই উপজেলার নাগেরপাড়া ইউনিয়নের ঢালীরহাট লক্ষ্মীপুর গ্রামের সোহাগ খানের মেয়ে।

সুমাইয়ার তিন বছরের মেয়ে হালিমা আক্তার ও দুই বছরের ছেলে আবু হুরায়রাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তাদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।

সুমাইয়ার বাবা সোহাগ খান বলেন, ছয় বছর আগে গোসাইরহাট উপজেলার নাগেরপাড়া ইউনিয়নের ঢালীরহাট গ্রামের ইউসুফ আলী হাওলাদারের ছেলে সাইফুল হাওলাদারের সঙ্গে আমার মেয়ের বিয়ে হয়। সাইফুল ভ্যানচালক। বিয়ের পর থেকেই তাদের ঝগড়া হতো। দুই মেয়েকে নিয়ে দাসেরজঙ্গল এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন সাইফুল।

তিনি আরো বলেন, রোববার দুপুরে পারিবারিক বিষয় নিয়ে সুমাইয়ার সঙ্গে ঝগড়া হয় সাইফুলের। একপর্যায়ে সাইফুল বাসা থেকে বেরিয়ে গেলে সুমাইয়া ক্ষোভে নাতনি হালিমা ও নাতি আবু হুরাইরাকে কীটনাশক পান করিয়ে নিজেও পান করেন।

গোসাইরহাট থানার ওসি মোল্লা সোয়েব আলী বলেন, পারিবারিক কলহের জেরে সুমাইয়ার সঙ্গে স্বামী সাইফুলের ঝগড়া হয়। ঝগড়ার পর বাসা থেকে বেরিয়ে যান সাইফুল। পরে অপমান সইতে না পেরে ক্ষোভে দুই সন্তানকে বিষপান করিয়ে সুমাইয়া নিজেও পান করেন। পরে তাদের সদর হাসপাতালে নিলে সুমাইয়াকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।


সম্পাদক

নির্বাহী সম্পাদকঃ মাসুদ রানা পলক প্রকাশক মোঃ আবুল হাসান মোবাইল নাম্বার 01860003666

বার্তাকক্ষ

মোবাইল নাম্বার 09638870180