ঠাকুরগাঁওয়ে বাড়ছে জ্বরের রোগী, করোনা পরীক্ষায় নেই আগ্রহ

প্রকাশিত: ৭:২৭ অপরাহ্ণ, জুন ১৪, ২০২১

ঠাকুরগাঁও শহরের একটি রোগনির্ণয় কেন্দ্রের চিকিৎসক হাবিব-ই-রসুলের চেম্বার। বাইরে অপেক্ষারত রোগী-স্বজনদের ভিড় ঠেলে এগিয়ে গেলেন জ্বরে ভোগা এক রোগী। কত দিন ধরে জ্বরে ভুগছেন? চিকিৎসকের এ প্রশ্নে আমতা আমতা করছিলেন তিনি। চাপে পড়ে শেষমেশ জানালেন তিনি, পাঁচ দিন ধরে জ্বরে ভুগছেন। কথা শুনে চিকিৎসক তাঁকে করোনা পরীক্ষার পরামর্শ দিলেন। কিন্তু কিছুতেই করোনা পরীক্ষা করতে রাজি নন তিনি। ওই রোগী উল্টো বলেন, ‘এটা ইনফ্লুয়েঞ্জা। ওষুধ দেন। ওষুধ খেলেই জ্বর সেরে যাবে।’

গতকাল রোববার সন্ধ্যা সাতটার দিকের চিত্র এটি। চিকিৎসক হাবিব-ই-রসুল প্রথম আলোকে বলেন, হঠাৎ জ্বরে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে গেছে। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে করোনার উপসর্গ থাকলেও কিছুতেই মানতে চান না যে​ তাঁরা করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন। এভাবেই জ্বরে আক্রান্ত রোগীরা করোনা পরীক্ষায় একেবারেই আগ্রহ দেখাচ্ছেন না। তিনি বলেন, বেশ কয়েক দিন ধরে দিনে তাপমাত্রা ওঠানামা করছে। দিনের বেলা প্রচণ্ড গরম ও ভোররাতে কিছুটা ঠান্ডা পড়ছে। আবহাওয়ার কারণেও জ্বর বেড়ে যেতে পারে। তবে করোনা সংক্রমণের আশঙ্কাকেও কোনোভাবেই উড়িয়ে দেওয়া যায় না।

সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় ৪২ জনের করোনা শনাক্ত
দিনাজপুরের এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজের আরটি-পিসিআর ল্যাব, ঠাকুরগাঁওয়ের বক্ষব্যাধি হাসপাতালের জিন এক্সপার্ট পরীক্ষা এবং সদর হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে পাওয়া অ্যান্টিজেন পরীক্ষার ফলাফল অনুযায়ী, সব মিলিয়ে ঠাকুরগাঁওয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ১২৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৪২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩৩ দশমিক ৮৭ শতাংশ। গত এক সপ্তাহে র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় ৫৪১টি নমুনা পরীক্ষা করে ২২৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ৪২ দশমিক ৩৩ শতাংশ।


সম্পাদক

নির্বাহী সম্পাদকঃ মাসুদ রানা পলক প্রকাশক মোঃ আবুল হাসান মোবাইল নাম্বার 01860003666

বার্তাকক্ষ

মোবাইল নাম্বার 09638870180